চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০

১১ বছরের ধর্ষিতার দেহে ৮০টি ক্ষতচিহ্ন

প্রিয়সংবাদ ডেস্ক  ২০১৮-০৪-১৫ ০৬:২৮:৩৬   বিভাগ:

 

কাঠুয়া ও উন্নাও গণধর্ষণ নিয়ে তোলপাড় চলছে ভারতে। এরই মধ্যে সামনে এল আরও একটি ধর্ষণের ঘটনা। আর তা ঘটেছে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রাজ্যে।

১১ বছরের এক বালিকার মরদেহ উদ্ধার হয়েছে গুজরাটের সুরাতের পান্ডসেরা এলাকার একটি জঞ্জালের স্তূপ থেকে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী, তাকে ধর্ষণের পর খুন করা হয়েছে। তার ছোট্ট শরীরে অন্তত ৮০টি আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

কাঠুয়ার আট বছরের শিশুর ধর্ষণ ও খুনের ঘটনাকে ‘ভয়ানক’ আখ্যা দিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস।

এদিকে কাঠুয়ার ঘটনাটি নিয়ে কুৎসা রটানো অব্যাহত রয়েছে। একটি বেসরকারি ব্যাঙ্কের কোচি শাখার অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার বিষ্ণু নন্দকুমার ফেসবুকে লেখেন, ‘ভালই হয়েছে মেয়েটাকে এখনই মেরে ফেলা হয়েছে। না হলে বড় হয়ে ওই ভারতের উপরে বোমা ফেলত।’

এই পোস্টটি দেখেই ক্ষোভ ফুসতে থাকেন বহু মানুষ। ব্যাঙ্কের পেজেও বিরূপ মন্তব্য করেন অনেকে। দ্রুত কমতে থাকে ব্যাঙ্কের রেটিং। ডিসমিস ইয়োর ম্যানেজার নামে একটি পেজও তৈরি হয় টুইটারে।

এ অবস্থায় নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিঅ্যাক্টিভেট করে দেন বিষ্ণু। তাতেও অবশ্য রেহাই মেলেনি। তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। ব্যাংকের অবশ্য দাবি, কাজে গাফিলতির জন্য বরখাস্ত কার হয়েছে বিষ্ণুকে। তার নামে মামলাও করেছে পুলিশ। সূত্র: আনন্দবাজার



ফেইসবুকে আমরা