চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২১ জুন ২০২১

বাংলাদেশের হামজার প্রতি ফিলিস্তিন সরকারের কৃতজ্ঞতা

প্রিয়সংবাদ ডেস্ক  ২০২১-০৫-১৬ ১৫:৩৮:৫৬   বিভাগ:

 

প্রিয় সংবাদ ডেস্ক :: ৫২ বছর পর চেলসিকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো ইংলিশ এফএ কাপের শিরোপা ঘরে তুলেছে লেস্টার সিটি। কিন্তু সবকিছু ছাড়িয়ে ইংল্যান্ডের মাটিতে আলো ছড়ালেন বাংলাদেশের বংশোদ্ভূত ফুটবলার হামজা চৌধুরী।

ইসরায়েলি আগ্রাসনে বিরুদ্ধে বিজয় মঞ্চে তিনি উড়িয়েছেন ফিলিস্তিনিদের পতাকা। এরপরই ইংল্যান্ডে নিযুক্ত ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রদূত আনুষ্ঠানিক কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন হামজার প্রতি।

ইংল্যান্ডের ঐতিহ্যবাহী ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে বসেছিল এফএ কাপের ফাইনাল। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজ পরিবারের সদস্য প্রিন্স উইলিয়ামসসহ দেশটির গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা।

টিভি কিংবা অনলাইনে খেলাটি উপভোগ করেছেন কোটি কোটি দর্শক। চেলসির বিপক্ষে শিরোপা জেতার পর উদযাপনের সময় বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মিডফিল্ডার হামজা চৌধুরী ফিলিস্তিনি পতাকা হাতে তুলে চলে এসেছেন আলোচনায়।

নির্যাতিত ফিলিস্তিনিদের প্রতি বিশ্ব ফুটবলারদের সংহতির ঘটনা অবশ্য এবারই প্রথম নয়। দেশ-বিদেশের নামিদামি মুসলিম তারকারা ফিলিস্তিনের পক্ষ নিয়েছেন।

ইউরোপিয়ান লিগে খেলা পল পগবা, মোহাম্মদ সালাহ, রিয়াদ মাহরেজ থেকে আচরাফ হাকিমিরা একাধিকবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সংহতি প্রকাশ করেছেন। তবে হামজার হাত ধরে ইউরোপের সর্বোচ্চ পর্যায়ে এমন প্রতিবাদ আলোচনায় এসেছে বিশ্ব মিডিয়ায়।

ডেইলি মেইল, দ্য মিরর, ফার্স্টপোস্ট, আইরিশ টাইমস, আল জাজিরা, মিডল ইস্ট মনিটর এমনকি দ্য টাইমস অব ইসরায়েলেও হামজার এই প্রতিবাদের খবর ছাপানো হয়েছে।

ওয়েম্বলিতে শনিবার দিবাগত রাতে নাটকীয়তায় ঠাঁসা এক ফাইনালে চেলসিকে ১-০ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো এফএ কাপের শিরোপা জিতেছে লেস্টার সিটি। এর আগে তিনবার এফএ কাপের ফাইনালে তিনবার উঠেছিল কিন্তু শিরোপা জেতা হয়নি।
অবশেষে ৫২ বছর পর অধরা শিরোপাটি ঘরে তুললো তারা। তবে পুরো আলোটাই নিজের করে নিলেন লেস্টার সিটি মিডফিল্ডার হামজা চৌধুরী। সতীর্থদের শিরোপা উদযাপনের সময় তার হাতে ফিলিস্তিনি পতাকা দেখলো কোটি কোটি মানুষ। ও

য়েম্বলিতে হামজার সঙ্গে সতীর্থ ফ্রান্সের ফুটবলার ওয়েসলে ফোফানাও ফিলিস্তিনের পতাকা হাতে তুলে নিয়ে অন্যরকম এই প্রতিবাদে অংশ নেন।

হামজার এমন প্রতিবাদের পর ইংল্যান্ডে নিযুক্ত ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রদূত হুসাম জমলট দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে হামজাদের আনুষ্ঠানিক চিঠি দিয়ে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

চিঠিতে বলা হয়, এফ এ কাপের শিরোপা জয়ের ঐতিহাসিক মুহূর্তে ফিলিস্তিনের পতাকা হাতে তুলে নিয়ে বিশ্ববাসীর সামনে অনন্য নজির স্থাপন করেছেন হামজা চৌধুরী ও ওয়েসলে ফোফানাও। ফুটবলের অন্যতম শীর্ষ প্রতিযোগিতায় ফিলিস্তিনের পতাকা তুলে নেয়ায় ফিলিস্তিনি সরকার ও সংগ্রামী জনগণের পক্ষ থেকে তাদের জানাই গভীর কৃতজ্ঞতা।’

ফিলিস্তিনে লেস্টার সিটি খেলবে উল্লেখ করে জমলট হামজাদ বলেন, ‌‌’শিরোপা জেতায় অভিনন্দন। আশাকরি একদিন লেস্টার সিটি স্বাধীন ফিলিস্তিনের রাজধানী জেরুজালেমে খেলবে।’

হামজার জন্ম ইংল্যান্ডের লাফবরোতে। মা রাফিয়া চৌধুরীর আদি নিবাস সিলেটের হবিগঞ্জে। তার বাবা গ্রানাডিয়ান বংশোদ্ভূত। বড় হয়েছেন সৎবাবা দেওয়ান মুরশিদ চৌধুরীর কাছে। তার বাড়িও বাংলাদেশের হবিগঞ্জে।



ফেইসবুকে আমরা