চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০

নভেম্বরে নেপালের সঙ্গে প্রীতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ

প্রিয়সংবাদ ডেস্ক  ২০২০-১০-১৬ ২৩:৫৭:২২   বিভাগ:

 

প্রিয়সংবাদ ডেস্ক :: সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী মাসেই মাঠে গড়াবে দেশের ফুটবল। আন্তর্জাতিক ম্যাচ দিয়ে সাত মাসেরও বেশি সময় পর নীরবতা ভাঙবে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের। নভেম্বরের ফিফা উইন্ডোতে দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলতে ঢাকা আসবে নেপাল। নভেম্বরের ১১ থেকে ১৯ তারিখের মধ্যে হবে ম্যাচ দুটি। প্রীতি ম্যাচ খেলতে নেপাল আসার খবর নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ। তিনি বলেন, ‘প্রীতি ম্যাচ খেলার জন্য নেপালকে প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল। এতদিন তারা সম্মতি দেয়নি দেশটির সরকারের বিধি-নিষেধের কারণে। নেপাল স্পোর্টস কাউন্সিল মৌখিক সম্মতি দিয়েছে।অল নেপাল ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনও (আনফা) আমাদের মৌখিক সম্মতি দিয়েছে। শনিবার ও রোববার নেপালে ছুটির দিন। এরপরই আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ সফর নিশ্চিত করবে আনফা।’

ঢাকায় দুটি ম্যাচ খেলতে যোগাযোগ করা হয়েছিল মালয়েশিয়া, ভুটান, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ ও নেপালের সঙ্গে। করোনার কারণে প্রথমেই অপারগতা দেখায় মালয়েশিয়া, ভুটান ও মালদ্বীপ। বাফুফে আশায় ছিল শ্রীলঙ্কা ও নেপালকে নিয়ে। কিন্তু কোভিড-১৯ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা লঙ্কানরা না করে দেয় বাংলাদেশকে। আনফা সম্মতি দিয়েছিল আগেই। অপেক্ষা ছিল নেপাল সরকারের অনুমতির। শুক্রবার আনফা দেশটির সরকারের কাছ থেকে অনুমতি পাওয়ায় আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অপেক্ষা ফুরাচ্ছে ‘বেঙ্গল টাইগার্স’দের।

গত জানুয়ারিতে শেষবার মাঠে নেমেছিল জামাল ভূঁইয়া-তপু বর্মনরা। ২৩শে জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু কাপের সেমিতে বুরুন্ডির কাছে ৩-০ গোলে হেরেছিল লাল-সবুজরা।

ফিফা কাতার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচগুলো ২০২১ সালে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিলে জানুয়ারির পর আন্তর্জাতিক ম্যাচ না খেলার আক্ষেপ নিয়ে বছর শেষের শঙ্কা তৈরি হয়েছিল। নেপালের সম্মতিতে মুখে হাসি ফুটেছে লাল-সবুজ ফুটবলারদের।

নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী মার্চ ও জুন মাসে হওয়ার কথা ছিল দ্বিতীয় রাউন্ডের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে বাংলাদেশের শেষ ৪ ম্যাচ। করোনাভাইরাসের কারণে জুন পর্যন্ত খেলা স্থগিত করার পর অক্টোবর ও নভেম্বরের ইন্টারন্যাশনাল উইন্ডোতে নতুন করে ম্যাচ আয়োজনের কথা জানিয়েছিল ফিফা। গত আগস্টে সেই সিদ্ধান্ত থেকেও সরে আসে তারা।



ফেইসবুকে আমরা