চট্টগ্রাম, , রোববার, ১ নভেম্বর ২০২০

চট্টগ্রামে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের মানববন্ধনে আতর্কিত হামলাঃ আহত -১০

প্রিয়সংবাদ ডেস্ক  ২০২০-০৮-২৪ ২১:৫০:৪০   বিভাগ:

মো.মুক্তার হোসেন বাবু:: চট্টগ্রামে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের আয়োজিত মানববন্ধনে আতর্কিত হামলা চালানো হয়েছে। জেলার বাঁশখালীতে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা ডা. আশরাফ আলীকে রাষ্ট্রীয় সম্মান না জানানোর প্রতিবাদে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কমান্ড আয়োজিত মানববন্ধনে এই হামলার ঘটনা ঘটে। গতকাল সোমবার বেলা ১১টার দিকে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে এ ঘটনা ঘটে। অভিযোগ উঠেছে, বাঁশখালীর সাংসদ মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরীর অনুসারীরা এ হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। হামলার ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের নেতাকর্মীসহ বেশ কয়েকজন সাংবাদিক ও মুক্তিযোদ্ধা আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কামান্ডার মোজ্জাফফর আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবুল হাশেম, সাতকানিয়া কমান্ডার আবু তাহের, মুক্তিযোদ্ধা আজিমুল ইসলাম ভেদু, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার অর্থ আবদুর রাজ্জাক, মৌলভী সৈয়দ আহমদের ভাতিজা জহির উদ্দিন বাবর, জয়নাল আবেদীন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য আবু সাদাত মোহাম্মদ সায়েম, ছাত্রলীগ নেতা আরমান হোসেন, জয় সরকারসহ কয়েকজন।


ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী রমিজ উদ্দিন কানন জানান, মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় সম্মানে বাধা দেওয়াসহ নানা বিষয়ে মুক্তিযুদ্ধের সন্তান কমান্ড চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে মানববন্ধন আয়োজন করে। শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন চলাকালে সাংসদ মোস্তাফিজুর রহমানের অনুসারী বাঁশখালী পৌরসভার মেয়র শেখ সেলিমুল হকের নেতৃত্বে মানববন্ধনে হামলা চালান। এদিকে হামলার তাৎক্ষণিক প্রতিবাদে মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার সাহাব উদ্দীনের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করা হয়েছে। এসময় বক্তব্য রাখেন যুবলীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মাহমুদুল হক, নুরুল আজিম রনিসহ মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধ সংসদ সন্তান কমান্ডের নেতাকর্মীরা।
সমাবেশে কমান্ডার সাহাব উদ্দীন সাংসদ মোস্তাফিজুর রহমানকে আওয়ামী লীগের সকল পদ ও সংসদ সদস্য পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আহবান জানান।


এদিকে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে মুক্তিযোদ্ধাদের শান্তিপূর্ণ অবস্থান ও মানববন্ধন কর্মসূচিতে মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিকদের ওপর হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন, চট্টগ্রাম রিপোটার্স ফোরাম, টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ। পৃথক পৃথক বিবৃতিতে প্রেস ক্লাব সভাপতি আলহাজ্ব আলী আব্বাস এবং সাধারণ সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোহাম্মদ আলী এবং সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শামসুল ইসলাম, চট্টগ্রাম রিপোটার্স ফোরামের সভাপতি কাজী আবুল মনসুর এবং সাধারণ সম্পাদক আলীউর রহমান, ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি দিদারুল আলম এবং সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রব মাসুম, টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি নাসির উদ্দিন তোতা বলেন, সোমবার সকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব চত্বরে বাঁশখালী এবং চট্টগ্রামের মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তান কমান্ড -এর পূর্বনির্ধারিত শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে আচমকা মিছিল নিয়ে বাঁশখালীর সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমানের পক্ষে ¯েøাগান দিয়ে বর্বরোচিত হামলার ঘটনা প্রেস ক্লাবের ইতিহাসে নজিরবিহীন। এ হামলায় মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান, সাংবাদিক ও প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদকসহ বিপুল সংখ্যক আহত হয়েছেন। নেতৃবৃন্দ এ ধরনের নেক্কারজনক ঘটনায় দায়ীদের চিহ্নিত করে দেশের প্রচলিত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের জন্য প্রশাসনের প্রতি দাবি জানান।



ফেইসবুকে আমরা