চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০

কোকেন-হেরোইনের চেয়ে দামি মাদক ফেনইথাইলামিন ঢুকছে চট্টগ্রামে

প্রিয়সংবাদ ডেস্ক  ২০২০-০৮-১২ ১৮:০৪:৫৪   বিভাগ:

মো.মুক্তার হোসেন বাবু :: বন্দর নগরী চট্টগ্রামে কোকেন-হেরোইনের চেয়ে দামি মাদক ফেনইথাইলামিন চট্টগ্রামে প্রবেশ করছে। মাদক চোরাকারবারীরা এ দামি মাদকদ্রব্য আইন শৃংখলা বাহিনীকে ঝাঁকি দিয়ে কৌশলে চট্টগ্রামে নিয়ে আসছে। এদিকে চট্টগ্রামে ফেনইথাইলামিন ওই বিশেষ একধরনের মাদক জব্দ করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। এই মাদকের দাম হেরোইন-কোকেনের চেয়ে অনেক বেশি বলে জানা গেছে। কোকেনসদৃশ নিষিদ্ধ এই মাদক এর আগে চট্টগ্রামে র‌্যাবের কোনো অভিযানে জব্দ হয়নি বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। গত মঙ্গলবার নগরীর খুলশী থানার ফয়স’লেক এলাকা থেকে ফেনইথাইলামিনসহ একজনকে গ্রেফতার করা হয় বলে র‌্যাব জানিয়েছে। গ্রেফতার ফিরোজ খান (৪০) চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার পূর্ব আশিয়া গ্রামের বাসিন্দা।
র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক এএসপি মাশকুর রহমান জানান, কোকেনের চালান নগরীতে প্রবেশের খবর পেয়ে ফয়স’লেক সংলগ্ন ইউএসটিসি গেটের সামনে অবস্থান নেয় র‌্যব সদস্যরা। ব্যাগ নিয়ে ফিরোজ সেখানে আসার পর আগে থেকে পাওয়া তথ্যানুযায়ী তাকে আটক করা হয়। এরপর তার সাথে থাকা ব্যাগ তল্লাশি করে ৭৫০ গ্রাম ফেনইথাইলামিন উদ্ধার করা হয়। পরে তার বাড়িতে তল্লাশি করে আরও ২৫ গ্রাম ফেনইথাইলামিন পাওয়া যায়।
এএসপি মাশকুর বলেন, পাউডার জাতীয় মাদকগুলো আমরা ভেবেছিলাম কোকেন। কিন্তু ফিরোজ নিজেই জানায় সেগুলো ফেনইথাইলামিন নামে এক ধরনের বিশেষ মাদক। মাদকদ্রব্য আইনে হেরোইন-কোকেনের মতো ‘ক’ শ্রেণিভুক্ত একটি মাদক। তবে দাম হেরোইন-কোকেনের চেয়ে অনেক বেশি। মাদকগুলো বিদেশ থেকে আনা হয়েছে বলে ধারণা র‌্যাবের এই কর্মকর্তার।
তিনি বলেন, বাংলাদেশে এই মাদক সচরাচর জব্দ হয়নি। খুব সহজলভ্যও নয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ফিরোজ জানিয়েছে, আজিজ নামে এক ব্যক্তি তাকে মাদকগুলো দিয়েছিল। তার কাছ থেকে এক ব্যক্তি সেগুলো নেওয়ার কথা ছিল।
এ ঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ফিরোজ ও পলাতক আজিজকে আসামি করে খুলশী থানায় একটি মামলা করা হয়েছে বলে তিনি জানান।



ফেইসবুকে আমরা