চট্টগ্রাম, , বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০

সন্ধ্যায় সুন্দরবন অতিক্রম করতে পারে আম্পান

প্রিয়সংবাদ ডেস্ক  ২০২০-০৫-২০ ১৭:০১:১১   বিভাগ:

 

প্রিয় সংবাদ ডেস্ক ::  সুপার সাইক্লোনে পরিণত হওয়া ঘূর্ণিঝড় আম্পান সন্ধ্যার দিকে বাংলাদেশের সুন্দরবন অঞ্চল অতিক্রম করতে পারে। আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, এ সময় স্বাভাবিকের চেয়ে ১০ থেকে ১৫ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাস হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদফতরের আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক গণমাধ্যমকে বলেন, আজ সন্ধ্যার দিকে ঘূর্ণিঝড় আম্পান দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সুন্দরবন নিকটবর্তী উপকূল দিয়ে অতিক্রম করা শুরু করবে। এলাকা পেরিয়ে যেতে প্রায় ২ থেকে ৩ ঘণ্টার মতো সময় লাগতে পারে।

তিনি বলেন, উপকূল অতিক্রম করার সময় অনেকখানি সময় ব্যয় হবে। তবে এতে আম্পানের শক্তি কমে যাবে এটা বলা যাবে না। আম্পানকে আমরা এখন আর সুপার সাইক্লোনও বলছি না। শুধু আম্পান বলছি। এর বাতাসের গতি অন্যসব ঝড়ের চেয়ে বেশি। এটি এখন পর্যন্ত যে গতিতে আসছে তাতে সুন্দরবন দিয়ে অতিক্রম করবে। এর প্রভাবে এরইমধ্যে উপকূলবর্তী জেলাগুলোতে ঝড়ো হাওয়া, বৃষ্টি হচ্ছে। ঢাকাও আকাশ মেঘলা, রাতে বৃষ্টি হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদফতরের সারাদেশের ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়, আম্পানের প্রভাবে খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ী দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও ভারো থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

এদিকে আবহাওয়া দফতরের বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ঘূর্ণিঝড় আম্পান বঙ্গোপসাগরে উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হয়েছে। এটি আজ বুধবার দুপুর চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ৪৮০ কিলোমিটার, কক্সবাজার উপকূল থেকে ৪৭০ কিলোমিটার, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ২৯০ ও পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৩২০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল। এ কারণে মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত এবং চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর ও কক্সবাজার উপকূলীয় এলাকাকে ৯ নম্বর বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।



ফেইসবুকে আমরা